চার্টার্ড সেক্রেটারীজ আইন, ২০১০

( ২০১০ সনের ২৫ নং আইন )

চার্টার্ড সেক্রেটারী পেশার উন্নয়ন, বিকাশ ও নিয়ন্ত্রণের উদ্দেশ্যে প্রণীত আইন
যেহেতু চার্টার্ড সেক্রেটারী পেশার উন্নয়ন, বিকাশ ও নিয়ন্ত্রণের উদ্দেশ্যে বিধান করা সমীচীন ও প্রয়োজনীয়;
 
 
সেহেতু এতদ্দ্বারা নিম্নরূপ আইন করা হইল :-

সূচি

ধারাসমূহ

১। সংক্ষিপ্ত শিরোনাম ও প্রবর্তন

২।সংজ্ঞা

৩।ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা

৪।ইনস্টিটিউটের কার্যালয়

৫। ইনস্টিটিউটের পরিচালনা ও প্রশাসন

৬। কাউন্সিল গঠন

৭।কাউন্সিলের মেয়াদ

৮।নির্বাচন, মনোনয়ন, বিরোধ নিষ্পত্তি, ইত্যাদি

৯।কাউন্সিলের সদস্য পদে শূন্যতা

১০।কাউন্সিল সদস্যের পদত্যাগ

১১। কাউন্সিল এর সভা

১২।কাউন্সিলের দায়িত্ব ও কার্যাবলী

১৩।স্থায়ী কমিটি ও সাব-কমিটি গঠন এবং পরিচালনা

১৪। সদস্যপদ

১৫।সদস্য হইবার যোগ্যতা

১৬।সদস্য হইবার ক্ষেত্রে অযোগ্যতা

১৭।সদস্য হইবার জন্য আবেদন

১৮।রেজিস্টার

১৯।প্রাইভেট প্র্যাকটিস (Private Practice)

২০।পেশাগত অসদাচরণ

২১।পেশাগত অসদাচরণের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ

২২।রেজিস্টার হইতে নাম অপসারণ

২৩।সচিব এবং অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারী

২৪।তহবিল

২৫।হিসাবক্ষণ ও নিরীক্ষা

২৬।ট্রেজারার

২৭।মিথ্যা দাবীর দন্ড

২৮।ইনস্টিটিউটের নাম ব্যবহার ও চার্টার্ড সেক্রেটারী ডিগ্রী প্রদানের দন্ড

২৯।লিমিটেড কোম্পানী কর্তৃক চার্টার্ড সেক্রেটারী হওয়ার ক্ষেত্রে বাধা নিষেধ

৩০।অপরাধ বিচারার্থ গ্রহণ

৩১। Code of Criminal Procedure, 1898 (Act V of 1898) এর প্রয়োগ, ইত্যাদি

৩২।আপীল

৩৩।প্রবিধান প্রণয়ন

৩৪।ইংরেজীতে অনূদিত পাঠ প্রকাশ

৩৫।বিলোপ ও হেফাজত